প্রকল্প বাস্তবায়নের ধীর গতিতে বিরক্ত প্রধানমন্ত্রী
প্রকল্প বাস্তবায়নের ধীর গতিতে বিরক্ত প্রধানমন্ত্রী

প্রকল্প বাস্তবায়নের ধীর গতিতে বিরক্ত প্রধানমন্ত্রী

প্রকল্প বাস্তবায়নের ধীর গতিতে বিরক্ত প্রধানমন্ত্রী, উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে দেরি হওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ

হাসিনা। তিনি বলেন, প্রকল্পটি দ্রুত বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন। কারণ বিলম্বে যেমন খরচ বাড়ে, তেমনি মানুষ যথাযথ সেবা থেকেও বঞ্চিত হয়।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তিনি এ নির্দেশনা দেন। প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন

শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

প্রকল্প বাস্তবায়নের ধীর গতিতে বিরক্ত প্রধানমন্ত্রী

বৈঠক শেষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এ তথ্য জানান।

সভায় পাঁচটি নতুন প্রকল্প এবং পাঁচটি সংশোধিত প্রকল্প অনুমোদন করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী

বলেন, প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী কিছুটা হতাশা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন যে কেন প্রকল্পগুলি বারবার সংশোধন করা দরকার তা

দেখার বিষয়। হাওর এলাকায় সড়ক নির্মাণে ফ্লাইওভারকে গুরুত্ব দিতে হবে। যাতে পানি চলাচলের পাশাপাশি রাস্তাও টেকসই হয়। রাস্তা হতে

হবে পুকুরের মত। একই সঙ্গে গ্রামাঞ্চলে সেতু ও কালভার্ট

এমনভাবে নির্মাণ করতে হবে যাতে নিচ দিয়ে নৌকা চলাচল করতে পারে। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্রধানমন্ত্রী ঢাকার আশপাশে

সাধারণ দরিদ্র মানুষের জন্য একটি বিনোদন কেন্দ্র স্থাপনেরও নির্দেশ দিয়েছেন। গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে নয়টি জেব্রা মারার ঘটনার সুষ্ঠু

তদন্তেরও নির্দেশ দেন তিনি। বরিশাল সেনানিবাস নির্মাণে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, জোয়ারের পানি যাতে সঞ্চালন করতে পারে সে জন্য সুবিধাটি নির্মাণে যত্ন নেওয়া উচিত।

জনগণকে হয়রানি করা উচিত নয়: পুলিশকে হয়রানি করা উচিত নয় রাষ্ট্রপতি মানুসকে হয়রানি করা উচিত নয়: রাষ্ট্রপতির দ্বারা পুলিশকে হয়রানি করা উচিত

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, একনেক সভায় দেশে নতুন ইউরিয়া

প্ল্যান্ট স্থাপনের জন্য ৬২৪ কোটি টাকার একটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পটি নিয়ে আলোচনায় একনেক সদস্যরা পরামর্শ দেন,

দেশীয় কারখানা স্থাপনের পাশাপাশি যেসব দেশে কম দামে প্রাকৃতিক গ্যাস পাওয়া যায়, সেখানে আমরা ইউরিয়া কারখানা স্থাপন করতে পারি, যা

অধিক লাভজনক হতে পারে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর অভিপ্রায় আমাদের কাছে সারের চাহিদা থাকলেও উৎপাদনে গেলে গ্যাসের সংকট দেখা দেবে।

প্রকল্প বাস্তবায়নের ধীর গতিতে বিরক্ত প্রধানমন্ত্রী

এর ফলে দেশের উদ্যোক্তারা বিদেশে সার কারখানা নির্মাণে বিনিয়োগ করতে পারবেন। দেশে সেই সার ব্যবহার করা যাবে কি না, সেই সম্ভাবনার

দ্বার খুলে দিতে পারে বেসরকারি খাতের জন্য। উদ্যোক্তারাও চাইলে বিদেশে সার কারখানা নির্মাণে বিনিয়োগ করতে পারেন। এতে গ্যাস সংকট

কমবে এবং বিদেশে বিনিয়োগ বাড়বে। তবে উদ্যোক্তাদের আগে দেশের স্বার্থ রক্ষা করতে হবে বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী।

একনেক সভায় পাঁচটি নতুন প্রকল্পে ৪ হাজার ৬২১ কোটি ৩৪ লাখ টাকা এবং পাঁচটি সংশোধিত প্রকল্পে অতিরিক্ত বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

এর মধ্যে সরকারি তহবিল (জিওবি) নির্ধারণ করা হয়েছে ৩,০৫৫.২১ কোটি টাকা এবং বৈদেশিক অর্থায়ন ১,০৫৬.১৩ কোটি টাকা।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.