রোজায় ছুটি বাড়ল স্কুল কলেজে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন
রোজায় ছুটি বাড়ল স্কুল কলেজে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন

রোজায় ছুটি বাড়ল স্কুল কলেজে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন

রোজায় ছুটি বাড়ল স্কুল কলেজে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন, রমজানে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটি কমছে না বলে জানিয়েছেন

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব আমিনুল ইসলাম। আগামী ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত প্রাথমিক স্কুলের ক্লাস চলবে বলে জানা গেছে।

দেশে গরমের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় শিশুদের নানা ধরনের রোগব্যাধি দেখা দিয়েছে।

 

রোজায় ছুটি বাড়ল স্কুল কলেজে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন

অন্যদিকে স্কুল-কলেজ খোলা থাকায় রমজানে ঢাকা মহানগরে যানজটের মাত্রাও বেড়ে গেছে―এসব বিষয় বিবেচনায়

মাধ্যমিক ও কলেজ পর্যায়ে ক্লাস কমিয়ে ছুটি বাড়ানোর চিন্তা করা হলেও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ছে না।

আমিনুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বড় ধরনের মহামারি ছাড়া আমরা আর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে চাই না। গুটি কয়েক

মানুষের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে না। বাড়তি ক্লাস করিয়ে প্রাথমিক স্কুলের পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের

এগিয়ে নিতে চাই। এতে কারো কোনো সমস্যা হলে সেটি আমাদের দেখার বিষয় না। ঘোষণা অনুযায়ী নির্ধারিত সময় পর্যন্ত নিয়মিত

ক্লাস চালিয়ে যেতে মন্ত্রণালয়কে নির্দেশনা দেওয়া

হয়েছে বলেও জানান তিনি সচিব আরো বলেন, ‘গত দুই বছর প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় অনেক শিশু পিছিয়ে গেছে। তাদের শিখন ঘাটতি মেটাতে রমজানে ক্লাস করানো হচ্ছে। যে যা-ই বলুক, আমরা আগামী ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত ক্লাস চালাব।
রমজান মাসে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ২০ এপ্রিল পর্যন্ত খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

তবে শুধু রমজান মাসে শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক

আজ সোমবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রণালয়।

এর আগে ২৬ এপ্রিল পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখার কথা বলা হয়েছিল। এর পর থেকে ছুটি বাড়ানোর দাবি জানান শিক্ষকরা। তাদের দাবির প্রেক্ষিতে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন এবং ছুটি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রণালয়।
তিনি উল্লেখ করেন,

রোজায় ছুটি বাড়ল স্কুল কলেজে সাপ্তাহিক ছুটি দুই দিন

মানুষ সহিংসতা ও বর্ণবাদের অবর্ণনীয় ক্রিয়াকলাপ প্রত্যক্ষ করেছে। আমেরিকানরা জনগণকে জবাবদিহি করতে এবং প্রকৃত পরিবর্তন কার্যকর করার প্রচেষ্টায় কখনও কখনও শোরগোলের মধ্যেও এসব সমস্যা প্রকাশ্যে, সততার সাথে মোকাবেলা করেছে। বাংলাদেশে অনেকেই একই কাজ করছে, এবং আমরা তাদের সাহসিকতার প্রশংসা করি।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.