সুবর্ণজয়ন্তী অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার নিবন্ধন চলছে
সুবর্ণজয়ন্তী অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার নিবন্ধন চলছে

সুবর্ণজয়ন্তী অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার নিবন্ধন চলছে

সুবর্ণজয়ন্তী অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার নিবন্ধন চলছে,  স্বাধীনতার ‘সুবর্ণ জয়ন্তী অনলাইন কুইজ’-এর জন্য নিবন্ধন শুরু

হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল অডিটোরিয়ামে এ প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়।অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি

ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী এ.কে.এম. মোজাম্মেল হক। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। তরুণপ্রজন্মের জন্য

মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে সহজ ও দ্রুততর করার জন্য এটি।রেজিস্ট্রেশন চলবে 25 ফেব্রুয়ারি রাত 11:59 পর্যন্ত। প্রতিযোগিতার সময় সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

 

সুবর্ণজয়ন্তী অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার নিবন্ধন চলছে

প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের বয়সসীমা হল গ্রুপ A: 6-12 বছর, গ্রুপ B: 13-16 বছর এবং গ্রুপ C: 19 বছর বা তার বেশি।

ভুল/ভুল তথ্য দিয়ে অংশগ্রহণ করলে প্রতিযোগিতা থেকে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে।https://bangladesh50.gov.bd/ এই ওয়েবসাইটে নিবন্ধন করুন।

একজন প্রতিযোগী শুধুমাত্র একবার অংশগ্রহণ করতে পারবেন। প্রতিটির জন্য বরাদ্দ সময় হল 28 মিনিট।পরে মন্ত্রী সুবর্ণ জয়ন্তী অনলাইন

কুইজ প্রতিযোগিতা ও সুবর্ণ জয়ন্তী ওয়েবসাইট উদ্বোধন করেন।উল্লেখ্য, অনলাইন কুইজের বিষয়গুলো হলো ভাষা আন্দোলন, ছয় দফা,

আগরতলা ষড়যন্ত্র, ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থান, মহান মুক্তিযুদ্ধ,

স্বাধীন বাংলাদেশ, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনধারা, বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক জীবন, দীর্ঘ মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা।

যুদ্ধ স্বাধীনতা, বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর দিকে যাত্রা। , বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার, বিল্ডিং বাংলাদেশ, ডিজিটাল বাংলাদেশ ভিশন, ডিজিটাল বাংলাদেশ

অর্জন, ভিশন 2041, স্বাধীনতার শতবর্ষ 2061, ডেল্টা প্ল্যান 2100, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী, বাংলাদেশের অর্জন, সমস্ত ই-সার্ভিস ইত্যাদি।

শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি বলেছেন, আমাদের সন্তানরা আর অনশনে

যাবে না- এটা আমাদের জন্য স্বস্তির। আমি তাদের ক্ষুধা মেটাতে বললাম। জাফর ইকবালের কাছে আমি কৃতজ্ঞ।

নিস্তেজ ওনোশোন ভাঙাশিক্ষার্থীরা অনশন করছে। ছবি: ইত্তেফাকউপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন,

উপাচার্য থাকুক বা না থাকুক, তাদের (শিক্ষার্থীদের) সমস্যা সমাধানে এর কোনো প্রভাব নেই। একজন উপাচার্য চলে গেলে

সুবর্ণজয়ন্তী অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতার নিবন্ধন চলছে

আরেকজন উপাচার্য চলে যান। আসবে কিন্তু তাদের সমস্যা থেকে গেলেও কোনো লাভ নেই। আমরা সমস্যার সমাধান করব। ”

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা।

বিক্ষোভকারীদের কেউ কেউ অনশন শুরু করেন। এরপর বুধবার (২৬ জানুয়ারি) সকাল ১০টা ২০ মিনিটে পানি দিয়ে শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল।

About admin

Check Also

খালেদা জিয়া বাইরে থেকে লাভ কী তাঁকে কারাগারে

খালেদা জিয়া বাইরে থেকে লাভ কী তাঁকে কারাগারে

খালেদা জিয়া বাইরে থেকে লাভ কী তাঁকে কারাগারে, বর্তমান সরকার ভুল পথে চলছে বলে মনে …

Leave a Reply

Your email address will not be published.